আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনার ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সফলভাবে শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছে রাশিয়া। সেচেনভের ফার্স্ট মস্কো স্টেট মেডিকেল ইউনিভার্সিটির এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রুশ স্পুটনিক সংবাদ সংস্থার খবরে জানানো হয়, স্বেচ্ছাসেবীদের ওপর ভ্যাকসিনের এই পরীক্ষা চালানো হয়। রুশ বিশ্ববিদ্যালয়টি দাবি করছে, এটি বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিনের সফল পরীক্ষা। এনডিটিভি অনলাইনের খবরে জানানো হয়।
১৮ জুন রাশিয়ার গামালি ইনস্টিটিউট অব এপিডেমাইলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজির তৈরি ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু করে সেচেনভ ফার্স্ট মস্কো স্টেট মেডিকেল ইউনিভার্সিটি। ইনস্টিটিউট ফর ট্রান্সলেশনাল মেডিসিন অ্যান্ড বায়োটেকনোলজির পরিচালক ভাদিম তারাসভ বলেন, করোনারোধে বিশ্বের প্রথম ভ্যাকসিনের পরীক্ষা স্বেচ্ছাসেবীদের ওপর সফলভাবে চালিয়েছে সেচেনভ ইউনিভার্সিটি। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন পরীক্ষায় অংশ নেওয়া স্বেচ্ছাসেবীদের প্রথম দলকে আগামী বুধবার ছেড়ে দেওয়া হবে। সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট ফর মেডিকেল প্যারাসিটোলজি, ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ভেক্টর বর্ন ডিজিজের পরিচালক আলেকসান্দর লুকাসেভ বলেন, মানুষের শরীরে এই ভ্যাকসিন নিরাপদ কি না, তা জানতে এই পরীক্ষা চালানো হয়। এটা সফলভাবে শেষ হয়েছে। স্পুটনিক সংবাদ সংস্থাকে লুকাসেভ জানান, ভ্যাকসিনের নিরাপত্তা নিশ্চিত হওয়া গেছে। এটি বাজারে থাকা অন্য ভ্যাকসিনগুলোর মতোই সুরক্ষিত। ভ্যাকসিনটির উন্নয়নের আরও পরিকল্পনা রয়েছে। ইনস্টিটিউট ফর ট্রান্সলেশনাল মেডিসিন অ্যান্ড বায়োটেকনোলজির পরিচালক ভাদিম তারাসভ বলেন, মহামারি পরিস্থিতিতে সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয় শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে না, এখানে বৈজ্ঞানিক ও প্রযুক্তি বিষয়ে গবেষণা চলছে। এ কারণে গুরুত্বপূর্ণ ওষুধ তৈরি করা সম্ভব হচ্ছে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পূর্ববর্তী নানা গবেষণা এই ভ্যাকসিন নিয়ে হয়েছে।