নিজস্ব প্রতিবেদক : শেরপুর জেলা যুবলীগ কর্তৃক ভয়াল ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে স্মরণসভা, আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে ২১ আগস্ট শুক্রবার বিকেল ৩টায় শেরপুর সদর উপজেলার কামারেরচর ইউনিয়নে কামারেরচর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান হাবিব এর সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ছানোয়ার হোসেন ছানু। এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, শেরপুর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শামছুন্নাহার কামাল, শেরপুর জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট রফিকুল ইসলাম, শেরপুর জেলা কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুল কাদির প্রমুখ। এসময় জেলা যুবলীগ সভাপতি আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, ইতিহাসের জগন্যতম নারকীয় হামলা ছিল ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা। তৎকালীন বিএনপি-জামাত সরকারের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ২১ আগস্ট গ্রেনেট হামলা চালানো হয়। তাদের মূল পরিকল্পনা ছিল বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যা করা। নারকীয় এ গ্রেনেড হামলায় ৫ শতাধিক আওয়ামী নেতাকর্মী আহত ও বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী আইভী রহমান সহ ২৪ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়। এখনো অনেক নেতাকর্মী পঙ্গু হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে। এছাড়াও তিনি আরো বলেন, আজকে শুধু শেরপুর না পুরো বাংলাদেশের মধ্যে একটি মডেল ইউনিয়ন শেরপুরের ১নং কামারেরচর ইউনিয়ন। এসব দেখে একটি মহল আমাকে নিয়ে মিথ্যা বানোয়াট তথ্য ছড়িয়ে গুজব সৃষ্টি করছে। কিন্তু তারা জানেনা কামারেরচরের হাবিব চেয়ারম্যান এ এলাকার সকল মানুষের ভালোবাসার মানুষ। এরা আমার ভাই, বাবা, মা, বোন, খালা। হাবিব চেয়ারম্যানকে এরা মন থেকে দোয়া করে সম্মান করে, স্নেহ করে, ভালোবাসে। ভবিষ্যতে আমাকে নিয়ে কোন প্রকার ষড়যন্ত্র হলে কামারেরচরের সাধারণ জনগণ এর দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিবে।